রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মির্জা ফখরুলের সঙ্গে গণতন্ত্র মঞ্চ ও ১২ দলের বৈঠক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন মো: আব্দুল ওয়াদুদ এমপি রবিবার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য লন্ডন যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি জলবায়ু পরিবর্তনে স্থানচ্যুতদেরকে জাতিসংঘের ‘অভিবাসী’ সংজ্ঞায় অন্তর্ভুক্তির আহবানঃ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এনআইডি জালিয়াত ও সহায়তকারীদের কোনো ছাড় নয় সিইসি বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ; মুজিবুল হক অফশোর ব্যাংকিং আইন বিল সংসদে নবনিযুক্ত প্রতিমন্ত্রীকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ফুলেল শুভেচ্ছা শিক্ষার জায়গাটা সবার জন্য উন্মুক্ত রাখতে হবে- শিক্ষামন্ত্রী হালনাগাদ ভোটার তালিকা প্রকাশ

সরকারকে ‘না’ বলুন- সেলিমা রহমা

সহ সম্পাদক / ৩৬ Time View
Update : রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২৩

বিশ্বে মানবাধিকার লঙ্ঘনের দিক দিয়ে বাংলাদেশ নম্বর ওয়ান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান। তিনি বলেন, বিশ্বের কোথাও বাংলাদেশের মতো মানবাধিকার লঙ্ঘন নেই। দেশবাসীকে বলব, এই ফ্যাসিস্ট আওয়ামী লীগ সরকারকে না বলুন।’

রোববার ১০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে এই মানববন্ধন হয়।

দেশের বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে জনগণ ঐক্যবদ্ধ উল্লেখ করে সেলিমা রহমান বলেন, ‘আমরা রাজপথে আছি, রাজপথে থাকব। মিছিলে মিছিলে বাংলাদেশ ভরে দেব। তবুও আমরা এই সরকারের নির্বাচন মানব না। ’

সেলিমা রহমান বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রী বলেছেন বিএনপিকে দাঁতভাঙা জবাব দেবে। তিনি এই কথা বলার কে? তিনি তো ভোটারবিহীন নির্বাচনে একজন মন্ত্রী।’

তিনি বলেন, ‘গত ২৮ অক্টোবরের পর আমাদের প্রায় ২২ হাজারের বেশি নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। অনেক ভাই ও বোনেরা ঘরে ঘুমাতে পারে না। ছেলেকে না পেলে মাকে, ভাইকে, বোন কিংবা বাবাকে নিয়ে যাচ্ছে। অনেককে ধরে নিয়ে যায় এবং মুক্তিপণ দাবি করে। এটা একটা ডাইনি সরকার। তারা নিজেরা পরিকল্পিতভাবে আমাদের মহাসমাবেশে হামলা করে পণ্ড করে দিয়েছে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কারাগারে বিএনপির নেতাকর্মীদের ন্যায্য অধিকার দেওয়া হচ্ছে না। আজকে দেশের বিচার বিভাগ চলছে একজনের নির্দেশে। বিশ্বের কোথাও বাংলাদেশের মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনে নেই। সরকার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ অনেকগুলো কার্যালয় বন্ধ করে রেখেছে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান লোভী ও ফ্যাসিস্ট সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দী রেখে তিলে তিলে মারতে চায়। আমরা সব জনগণকে বলব- এই সরকারকে না বলুন। ’

দেশবাসীকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি এই নেতা বলেন, ‘আপানারা দোকানপাট বন্ধ রাখুন। বিদেশ ভ্রমণ বাদ দিন। বিয়েসহ নানা উৎসব কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করুন। দেশে নিত্যপণ্যের দাম আকাশছোঁয়া। পেঁয়াজের কেজি কত? এভাবে বেশিদিন চলবে না। আজকে ডান বাম সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে। অতি শিগগিরই বাংলাদেশের জনগণ বর্তমান আওয়ামী সরকারের পতন ঘটাবে।’

বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের সদস্য সচিব কাদের গণি চৌধুরীর পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুক, বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মীর নেওয়াজ আলী, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, সৈয়দা আসিফা আশরাফি পাপিয়া, নাজিম উদ্দিন আলম, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, রেহানা আক্তার রানু প্রমুখ।

এই কর্মসূচিতে আরও অংশ নেন, বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাদের মধ্যে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বিজন কান্তি সরকার, চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এবিএম আবদুস সাত্তার, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা গাজী কামরুল ইসলাম সজল, রফিকুল ইসলাম মাহতাব, নাজমুল হাসান,মিজানুর রহমান রাজ,গিয়াসউদ্দিন মামুন, জসিম শিকদার রানা, পেশাজীবীদের মধ্যে রুহুল আমিন গাজী, অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস,ডা. সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল হাই শিকদার, রিয়াজুল ইসলাম রিজু, শহীদুল ইসলাম, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, অধ্যাপক কামরুল ইসলাম, সাংবাদিক রাশেদুল হক, আমিরুল ইসলাম কাগজীসহ কয়েক হাজার নেতাকর্মী অংশ নেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর