সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
হিটস্ট্রোক থেকে বাঁচতে করণীয়  দু’দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকা আসছেন কাতারের আমির বিএনপি তাদের দল এবং দেশের গণতন্ত্র দুটোই ধ্বংসের চেষ্টা চালাচ্ছে : ড. হাছান মাহমুদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব প্রতিহত করতে স্থায়ী কমিটির নির্দেশনা খাদ্য সামগ্রী অপচয় রোধে পরামর্শ দিয়েছে সংসদীয় কমিটি ২৬ এপ্রিল ঘিরে শঙ্কা: আ. লীগ-বিএনপি ফের মুখোমুখি! শুক্রবার শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ করবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ হাসপাতালে পর্যাপ্ত শয্যা খালি রাখার নির্দেশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা সবসময়ই প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী ‘হতাশায় নিমজ্জিত বিএনপি নেতাদের বোধশক্তি লোপ পেয়েছে: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার অপেক্ষায় সিলেটবাসী

সিলেট প্রতিনিধি / ৮৮ Time View
Update : বুধবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২৩

সব প্রস্তুতি শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অপেক্ষায় সিলেটবাসী। পূণ্যভূমি থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করতে সিলেট আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে বিমানে ঢাকা থেকে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন তিনি। সেখান থেকে প্রথমে হজরত শাহজালাল (রহ.) ও পরে হজরত শাহপরান (রহ.)-এর মাজার জিয়ারত করবেন।

এরপর মধ্যাহ্নভোজ শেষে দুপুর ২টায় নগরীর সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে আওয়ামী লীগের প্রথম নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে সিলেটজুড়ে বইছে উৎসবের আমেজ। তোরণ, ব্যানার-ফেস্টুনে সেঁজেছে সিলেট নগরী। নগরীর ব্যস্ততম সড়কগুলো সেজেছে বর্ণিল সাজে। জনসভায় লাখো মানুষের সমাগম ঘটাতে করতে কাজ করেছেন নেতাকর্মীরা।

এর আগে মঙ্গলবার জনসভাস্থল পরিদর্শন করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর পক্ষ থেকে চারস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে। নগরীজুড়ে বৃদ্ধি করা হয়েছে পুলিশের টহল। সাদা পোশাকে মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের। জনসভা মঞ্চ ও আশপাশ এলাকায় স্থাপন করা হয়েছে ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা।

দলীয় সূত্র বলছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এটি সিলেট বিভাগের একমাত্র জনসভা। যেখানে দলের প্রধান শেখ হাসিনা সরাসরি উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দেবেন। নেতাকর্মীদের দেবেন নানা নির্দেশনা, ভোট চাইবেন সিলেটবাসীর কাছে। এ জন্য এ জনসভায় ব্যাপক লোকসমাগমের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সিলেট নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ড ছাড়াও সিলেট জেলার সকল উপজেলা, পার্শ্ববর্তী সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলা থেকেও নেতাকর্মীরা মিছিল-শোডাউন করে জনসভায় অংশ নেবেন।

বুধবার সকালে জনসভাস্থল ঘুরে দেখা গেছে, জনসভার জন্য বিশাল মঞ্চ প্রস্তুত করা হয়েছে। বিশাল এ মঞ্চে ৩০০ আসনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সমাবেশস্থলের চারপাশে বাঁশ দিয়ে শক্ত বেষ্টনী গড়ে তোলা হয়েছে। নেতাকর্মীদের সমাবেশস্থলে ঢোকার জন্য পৃথক লেন তৈরি করা হয়েছে।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রীর জনসভার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এখন কেবল অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রীর। দলীয় প্রধানকে স্বাগত জানাতে গত কয়েকদিন থেকে নিরলসভাবে নেতাকর্মীরা কাজ করেছেন। কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক জনসভায় ১০ লাখ মানুষের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে কাজ করা হয়েছে। বুধবারের জনসভা সিলেটের ইতিহাসে স্মরণকালের বৃহৎ সমাবেশ হবে বলে আমরা মনে করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর