শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

ব্যবসায়ীর ২৩ লাখ টাকা চুরি, চালক গ্রেপ্তার

সাভার প্রতিনিধি / ৭৮ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২৩

গাড়িতে ব্যাগ রেখে পাওনা টাকা উঠাতে বের হয়েছিলেন ব্যবসায়ী লুৎফর রহমান। ব্যাগে ছিল ২৩ লাখ টাকা। ফিরে এসে দেখেন গাড়ির দরজা খোলা, নেই টাকার ব্যাগ, নেই চালকও। পাশে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় গাড়ির চালকই টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়েছেন। পরে থানায় অভিযোগ করলে ঘটনার ৫ দিন পর সেই চালককে খুঁজে বের করে পুলিশ। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় প্রায় ২০ লাখ টাকা।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে সেই চালককে আশুলিয়া থানা থেকে ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়। এর আগে, গত ১৫ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭টার দিকে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকার পাইকারি আড়ৎ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

২০ ডিসেম্বর গোপালগঞ্জ জেলায় অভিযান চালিয়ে আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার চালক হলেন, গোপালগঞ্জ সদর থানার মো. খবিরুদ্দিনের ছেলে মো. সোহেল (৩৩)। তিনি গত ৬ মাস ধরে ২০ হাজার টাকা বেতনে ব্যবসায়ী লুৎফর রহমানের গাড়ির চালক হিসেবে কাজ করছিলেন।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী লুৎফর রহমান সাভারের নামা বাজার এলাকার মেসার্স তুফান আলী ট্রেডার্সের মালিক। তিনি তেল, চিনি, আটা, ময়দার পাইকারী ব্যবসায়ী।

লুৎফর রহমান বলেন, ‘ড্রাইভারকে সাথে নিয়ে আমি পাওনা টাকা কালেকশনে বের হয়েছিলাম। কালেকশনের টাকার ব্যাগ গাড়িতে রেখে বাইপাইলে মা এন্টারপ্রাইজ নামে একটি দোকানে যাই। ঘুরে এসে দেখি টাকার ব্যাগ নেই, ড্রাইভারও নেই। গাড়ি রেখে পালিয়েছে ড্রাইভার। পরে সেই দোকানের সিসি ক্যামেরা ফুটেজে দেখি ড্রাইভার আমার টাকার ব্যাগ নিয়ে যাচ্ছে। পরে থানায় অভিযোগ করি।’

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জোহাব আলী বলেন, ‘এক ব্যবসায়ীর টাকা নিয়ে পালিয়েছিল তার ড্রাইভার। খবর পেয়ে আমরা অভিযানে নামি। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় এবং গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী থানার তিলছড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এক আত্মীয়ের বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন তিনি। তার কাছ থেকে চুরির ১৯ লাখ ৭৮ হাজার ৫০০ টাকা উদ্ধার করে জব্দ করা হয়েছে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর