সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১১:৩৫ অপরাহ্ন

ডুবে যাওয়া ফেরি উদ্ধারে হামজা ও রুস্তম

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি / ১৩২ Time View
Update : বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২৪
ফাইল ছবি

পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় ৯টি যানবাহন নিয়ে ডুবে যাওয়া ফেরি রজনীগন্ধা উদ্ধারে ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা ও রুস্তম।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সাড়ে দশটার দিকে বিআইডব্লিউটি এর পক্ষ থেকে বলা হয়, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ডুবে যাওয়া রজনীগন্ধা ফেরী উদ্ধারে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটি) উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা দৌলতদিয়া হতে ঘটনাস্থলের দিকে রওনা হয়েছে। একই সঙ্গে মাওয়া ঘাট হতে উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তমও যাত্রা শুরু করেছে। এদিকে আরিচা নদী বন্দরের উদ্ধারকারী টীম ইতোমধ্যে উদ্ধার কার্যক্রমে যুক্ত হয়েছে।

এদিকে আইডব্লিউটি এর চেয়ারম্যান কমডোর আরিফ আহমেদ মোস্তাফা এবং উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা কার্যক্রম জোরদার এবং তদারকি করতে ঘটনাস্থলের উদ্দেশে ইতোমধ্যে রওনা দিয়েছেন।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয়ের বাণিজ্য শাখার ব্যবস্থাপক মো. সালাম হোসেন জানান, ফেরি ডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি, ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ফেরির চালকের সহকারী নিখোঁজ রয়েছে বলে তিনি জানান। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস জানায়, ঘন কুয়াশার কারণে মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) দিনগত রাত ২টা থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, আরিচা-কাজীরহাট ও ধাওয়াপাড়া-নাজিরগঞ্জ নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। যা বুধবার সকালেও চালু হয়নি। এমন অবস্থায় পাটুরিরা ৫নং ঘাটের কাছাকাছি অবস্থানে থাকা ফেরি রজনীগন্ধা বাল্কহেডের ধাক্কায় তলা ফেটে পদ্মা নদীতে ডুবে যায়। এসময় ফেরিতে ৯টি যানবাহন ছিল বলে জানা গেছে। উদ্ধারে নৌপুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে কাজ করেছে স্থানীয়রা।

এমআর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর