বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১১:৪৭ অপরাহ্ন

খাবার মানসম্মত না হলে সংশ্লিষ্ট ক্যাটারিং প্রতিষ্ঠানের সাথে রেলওয়ের চুক্তি বাতিল করা হবে—রেলপথ মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম ৷

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৪৬ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম বলেছেন, খাবার মানসম্মত না হলে প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট ক্যাটারিং প্রতিষ্ঠানের সাথে রেলওয়ের চুক্তি বাতিল করা হবে, যাত্রীদের ভালো খাবারের ব্যবস্থা করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি)  রেল ভবনের সভাকক্ষে বাংলাদেশ রেলওয়ের ট্রেনের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও ক্যাটারিং সার্ভিস এর সেবার মান এবং সার্বিক বিষয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

রেলমন্ত্রী বলেন,বর্তমানে ট্রেনে ক্যাটারিং সার্ভিসের চুক্তি অনুযায়ী মান সম্মত খাবার প্রদানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বর্তমান বাজার মূল্য অনুযায়ী খাবার দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে । কিন্তু যাত্রীদের অভিযোগ ক্যাটারিং প্রতিষ্ঠানগুলো বাসি রুটি ও গন্ধযুক্ত খাবার পরিবেশন করে । যারা ক্যাটারিং পরিচালনা করেন তাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে, খাবারের মান ভালো করতে হবে। খাবারের মান খারাপ হলে বদনাম ক্যাটারিং সার্ভিস প্রতিষ্ঠানের হয় না। দুর্নাম হয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের, রেলমন্ত্রীর । খাবারের মান স্বাস্থ্যসম্মত করতে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নিয়মিত মনিটরিং করার নির্দেশ দেন মন্ত্রী । কর্মকর্তাগণ যার যার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করলে খাবার মানসম্মত হবে,  পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বৃদ্ধি পাবে এবং টিকেট কালোবাজারি বন্ধ হবে। ট্রেনে হকারদের উৎপাত বন্ধ করতে হবে, হকারদের সাথে বসে আলোচনা করে ব্যবস্থা নিতে হবে ।

তিনি বলেন, ট্রেনে যাত্রীদের চাহিদা অনুযায়ী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বৃদ্ধি করতে হবে। যাত্রীদের অভিযোগ ট্রেন অপরিষ্কার এবং অনেক সময় বাথরুম ব্যবহার অযোগ্য অবস্থায় থাকে, যা মেনে নেওয়া যায় না। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বৃদ্ধিতে পরিদর্শন বাড়ানোসহ নিয়োজিত পরিচ্ছন্ন কর্মীদের মনিটরিং করার নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী বলেন, রেলে যারা দায়িত্বে আছেন তাদের হাওয়া খেলে চলবে না, কাজ করতে হবে। ভালো কাজের জন্য স্বীকৃতি দেওয়া হবে। দায়িত্বে অবহেলার কারণে বদনাম হলে সে বদনাম মন্ত্রীর হয়, এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকেও সে বদনামের ভাগীদার হতে হয় । প্রধানমন্ত্রীর বদনাম হয় এমন কাজ সহ্য করা হবে না। সকলকে দায়িত্বে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

সকালে মন্ত্রী এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের মহাপরিচালক Tkeo Konishi ও কান্ট্রি ডিরেক্টর Edimon Gintingএর সাথে বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভিন্ন প্রকল্পে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের আর্থিক সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা করেন। বাংলাদেশ রেলওয়েকে সহযোগিতার জন্য এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান এবং চলমান প্রকল্পসমুহে আর্থিক সহযোগিতা অব্যাহত রাখা এবং ভবিষ্যতে যেসব প্রকল্প নেয়া হবে সেই প্রকল্পে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের জন্য এশিয়ান ডেভলপমেন্ট ব্যাংকের মহাপরিচালক এবং কান্ট্রি ডিরেক্টরকে অনুরোধ করেন মন্ত্রী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর