বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
তীব্র গরমে রাস্তায় পানি ছিটানোর সুপারিশ সংসদীয় কমিটির আগামী ৫ জুন অনুষ্ঠিত হবে ঝিনাইদহ-১ আসনের উপ নির্বাচন  নারীদের গৃহকর্মের অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের সুপারিশ: সংসদীয় কমিটি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ পাট পণ্যের উন্নয়ন ও বিপণনে একটি সমন্বিত পথনকশা প্রণয়ন করা হবে – বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী নানক নির্বাচিত সরকারকে হটানোর চক্রান্ত দীর্ঘদিন ধরে চলছে – কাদের উপজেলাভেদে ২-৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন : ইসি সচিব হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চার নির্দেশনা পদ্মায় গোসলে নেমে ৩ কিশোরের মৃত্যু দেশের বাজারে কমানো হয়েছে সোনার দাম

বিধ্বংসী সেঞ্চুরিতে রেকর্ডবুকে তানজিদ তামিম

ক্রীড়া প্রতিবেদক / ৩৪ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

৯৯ রানের পর জেসন হোল্ডারের বলটা একটু সাবধানী হয়েই খেলেছেন তানজিদ তামিম। রান নিতে গিয়েও থমকে গেলেন। পরের বলে আর আটকাতে হলো না। পেয়েই গেলেন বিপিএলে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি। সবধরণের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট মিলিয়ে এটি এই তরুণের প্রথম শতক। সবমিলিয়ে বিপিএলের ইতিহাসে বাংলাদেশিদের মাঝে তৃতীয় সর্বোচ্চ স্কোর এটি।

ইনিংসের শুরু থেকেই এদিন বিধ্বংসী ছিলেন চট্টগ্রামের ওপেনার। ৭ চার আর ৭ ছয়ে ৫৮ বলে পেলেন সেঞ্চুরির দেখা। চলতি বিপিএলে এটি তৃতীয় শতক। দেশীয়দের মধ্যে এটি দ্বিতীয়। সেঞ্চুরি করেই অবশ্য থামেননি তামিম। নিজের ইনিংসকে টেনে নিয়েছেন ১১৬ পর্যন্ত। এবারের বিপিএলে এটাই ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

ডু অর ডাই ম্যাচে চট্টগ্রামের অধিনায়ক শুভাগত হোম টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এদিন চট্টগ্রামের জার্সিতে ডেব্যু হয়েছিল মোহাম্মদ ওয়াসিমের। তবে সেই ডেব্যু ছিল ভুলে যাওয়ার মতোই। এরপরেই যেন দলের স্কোর গড়ার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন বগুড়ার এই ক্রিকেটার। ৬৫ বলের ইনিংস সাজিয়েছেন ৮ ছয় আর ৮ চার দিয়ে।

তানজিদ যখন আউট হয়েছে, ততক্ষণে চট্টগ্রামের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছে ১৭০ রান। তামিম এদিন চড়াও হয়েছেন প্রায় সবার ওপরেই। কোনভাবেই তাকে আটকানোর রাস্তা পায়নি খুলনার বোলাররা। প্রথম ১০ বলে ১০ রান করা তামিম সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও বেশি ধ্বংসাত্মক হয়েছেন। আর এই ঝড় বেশি দেখেছেন মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ এবং আরিফ আহমেদ। শেষ পর্যন্ত তাকে থামিয়েছেন ওয়েইন পার্নেল।

ইয়র্কার লেন্থের বলটা স্ট্যাম্পে আঘাত করার পর স্বয়ং পার্নেলই তাকে অভিবাদন জানালেন। চট্টগ্রামও এগিয়ে গিয়েছে তার ওই বিধ্বংসী ইনিংসের সুবাদেই। তৃতীয় উইকেট জুটিতে টম ব্রুসের সঙ্গে ৬১ বলে খেলেছিলেন ১১০ রানের পার্টনারশিপ। আর ২০ ওভারে তাদের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১৯২ রান।

এমআর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর