সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

দেশে মেডিকেল ডিভাইস তৈরি করলে তা সাধারণ  মানুষের কাছে সহজলভ্য হবে-স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন 

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১১২ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা.সামন্ত লাল সেন বলেছেন,আমরা দেশে অনেক ঔষুধ তৈরি করি কিন্তু মেডিকেল ডিভাইস দেশে তৈরি হয় না হার্টের অপারেশন করতে বা রিং বসাতে স্টেন্টিং দরকার হয়। প্লাস্টিক সার্জারির ক্ষেত্রে টিস্যু দরকার হয়। যা দেশের বাইরে থেকে আনলে অনেক দাম পড়ে। দেশে মেডিকেল ডিভাইস তৈরি করলে তা সাধারণ  মানুষের কাছে সহজলভ্য হবে, একটা রিং পরানো বা ভালব রিপ্লেসমেন্টে অনেক টাকার প্রয়োজন হয়। দেশে মেডিকেল ডিভাইস উৎপাদনের ক্ষেত্রে সরকারের পক্ষ থেকে সকল ধরণের সহযোগীতা করা হবে বলে তিনি জানান। এ সময় তিনি ঔষুধের দাম কমানো জন্য বাংলাদেশ ঔষুধ শিল্প সমিতির প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ডায়াবেটিস ও হার্টের ঔষুধের দাম কমালে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে।
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা.সামন্ত লাল সেন আজ ঢাকায় পূর্বাচলে চায়না বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে জিপিই এক্সপো (প্রা:) লি: এবং বাংলাদেশ ঔষুধ শিল্প সমিতির আয়োজনে ১৫তম এশিয়া ফার্মা এক্সপো ও এশিয়া ল্যাব এক্সপো ২০২৪ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.সামন্ত লাল সেন আরো বলেন,আমি বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রী হবো, কোনদিন স্বপ্নেও ভাবিনি। আমি তৃণমূল থেকে কাজ করে আজ এই পর্যায়ে এসেছি। স্বাস্থ্য খাতের উন্নতির জন্য সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন। তাহলে সাধারণ মানুষকে সহজলভ্য চিকিৎসা সেবা দেওয়া যাবে। দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা সুন্দর ও সহজলভ্য হলে সাধারণ মানুষের দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উপর আস্থা ফিরে আসবে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের ঔষুধ বিশ্বব্যাপী গুণগতমান ও নিরাপত্তার দিক দিয়ে পরিচিতি লাভ করেছে। ঔষুধ শিল্পের বিকাশে সরকার ফার্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিকে র্থাস্ট সেক্টর ঘোষণা  করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালে ঔষুধকে বর্ষপণ্য ঘোষণা করেন। স্বাধীনতার পর দেশের ঔষুধ শিল্প ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেছে। বাংলাদেশ ৯৮ ভাগ ঔষুধের নিজস্ব চাহিদা পূরণ করে বিশ্বে ১৫৭ টি দেশে রপ্তানি করছে।
বাংলাদেশ ঔষুধ শিল্প সমিতির প্রেসিডেন্ট আব্দুল মুক্তাদিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ এম হাসান ও ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ ইউসুফ।
আলোচনা পর্বশেষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন ফিতা কেটে ১৫তম এশিয়া ফার্মা এক্সপো ও এশিয়া ল্যাব এক্সপো ২০২৪ এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন এবং বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন। ‘এন ইন্টারন্যাশনাল এক্সিবিশন অন কমপ্লিট ফার্ম ম্যানুফাকচারিং’ শিরোনামে ১৫তম এশিয়া ফার্মা এক্সপোতে ৩৬  টি দেশের ৭৫১ ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি তাদের পন্য প্রদর্শন ও সেবার মান তুলে ধরছে। এক্সপো চলবে আজ ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত। এ এক্সিবিশিনে দেশ ও বিদেশের স্বাস্থ্য খাতে বিষেজ্ঞগণ অংশগ্রহণ করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর