সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
হিটস্ট্রোক থেকে বাঁচতে করণীয়  দু’দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকা আসছেন কাতারের আমির বিএনপি তাদের দল এবং দেশের গণতন্ত্র দুটোই ধ্বংসের চেষ্টা চালাচ্ছে : ড. হাছান মাহমুদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব প্রতিহত করতে স্থায়ী কমিটির নির্দেশনা খাদ্য সামগ্রী অপচয় রোধে পরামর্শ দিয়েছে সংসদীয় কমিটি ২৬ এপ্রিল ঘিরে শঙ্কা: আ. লীগ-বিএনপি ফের মুখোমুখি! শুক্রবার শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ করবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ হাসপাতালে পর্যাপ্ত শয্যা খালি রাখার নির্দেশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা সবসময়ই প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী ‘হতাশায় নিমজ্জিত বিএনপি নেতাদের বোধশক্তি লোপ পেয়েছে: ওবায়দুল কাদের

তিন দিনের সফরে সুইডেনের রাজকন্যা ঢাকায়

সিনিয়র রিপোর্টার / ৫৮ Time View
Update : সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০২৪

সুইডেনের ক্রাউন প্রিন্সেস ভিক্টোরিয়া জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) এর শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ১৮ থেকে ২১ মার্চ বাংলাদেশ সফর করবেন।

সুইডিশ দূতাবাসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রাজকুমারী সুইডেনের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগিতা ও বৈদেশিক বাণিজ্যমন্ত্রী জোহান ফরসেল এবং ইউএনডিপির সহকারী মহাসচিব উলরিকা মোদেরের সঙ্গে সফর করবেন।

এই সফরের উদ্দেশ্য বাংলাদেশের উন্নয়ন যাত্রা সম্পর্কে জানা এবং জলবায়ু, লিঙ্গ সমতা, সবুজ ও ডিজিটাল রূপান্তর এবং ব্যবসায়িক খাতের ভূমিকার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে এসডিজি বাস্তবায়নে অগ্রগতি এবং চ্যালেঞ্জগুলি পর্যবেক্ষণ করা। রবিবার ঢাকায় সুইডিশ দূতাবাসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

ক্রাউন প্রিন্সেস এবং প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধি, উদ্যোক্তা, সংস্থা, উন্নয়ন সহযোগী এবং তরুণদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

তারা সবুজ এবং ডিজিটাল রূপান্তর প্রচারে ব্যবসায়িক ক্ষেত্রের ভূমিকার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ ইভেন্টগুলিতে অংশগ্রহণ করবে।

তার এ সফরে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য জাতিসংঘের সহায়তার বিষয়টিও গুরুত্ব পাবে। সফরের দ্বিতীয় দিন ভিক্টোরিয়া খুলনার কয়রা উপজেলায় যাবেন। সরকার ও ইউএনডিপি’র উদ্যোগে বাস্তবায়িত ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সরজমিনে পরিদর্শন করবেন তিনি।

প্রতিনিধি দলটি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরসহ বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলও পরিদর্শন করবে।

“আমি ইউএনডিপির শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ক্রাউন প্রিন্সেস এবং ইউএনডিপি-র সহকারী মহাসচিব উলরিকা মোদেরের সঙ্গে বাংলাদেশ সফরের জন্য উন্মুখ। সুইডিশ সরকার সক্রিয়ভাবে এজেন্ডা ২০৩০ বাস্তবায়নে অবদান রাখে,” বলেছেন ফরসেল, যিনি দেশে তার প্রথম সফর করেন।

তিনি বলেন, সুইডেন এবং বাংলাদেশের অংশীদারিত্ব ৫০ বছরেরও বেশি সময় আগের এবং দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন সহযোগিতা এবং ব্যাপক বাণিজ্য নিয়ে গঠিত।

“বাংলাদেশ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে একটি চিত্তাকর্ষক উন্নয়ন যাত্রা করেছে এবং ২০২৬ সালে একটি নিম্ন আয়ের দেশ থেকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে৷ সুইডিশ কোম্পানিগুলোসহ ব্যবসায়িক খাত সবুজ এবং ডিজিটাল রূপান্তর প্রচারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, যা কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং টেকসই বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখে,” ফোরসেল যোগ করেন।

ক্রাউন প্রিন্সেস ২০০৫ সালে বাংলাদেশে প্রথম সফরের প্রায় দুই দশক পর আসছেন।

ক্রাউন প্রিন্সেসকে ২০২৩ সালের অক্টোবরে ইউএনডিপি গুডউইল অ্যাম্বাসেডর নিযুক্ত করা হয়।

এমআর

 

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর