রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন

বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠানোর আহ্বান: প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর 

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫৮ Time View
Update : শনিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে ব্রিটিশ-বাংলাদেশিদের বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠিয়ে  বিশেষ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী ।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বাংলাদেশ হাই কমিশন, লন্ডন কর্তৃক আয়োজিত রেমিট্যান্স মেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে

তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, “বৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবাসিদের প্রেরিত অর্থ সুরক্ষিত থাকবে এবং এই অর্থ থেকে সরকারি প্রণোদনাসহ সঞ্চয় ও বিনিয়োগের মাধ্যমের অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশি মুনাফা অর্জনের সুযোগ রয়েছে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “যারা বৈধ পথে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স পাঠাবেন তাদের জন্য ‘রেমিটেন্স এওয়ার্ড’ প্রবর্তনের পরিকল্পনা রয়েছে।” তিনি আরো বলেন, রেমিট্যান্স প্রেরণের জন্য ২.৫% প্রণোদনা থেকে ৩% বৃদ্ধির যে প্রস্তাব রেমিটেন্স প্রেরণকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা জানিয়েছে, তা বিবেচনার জন্য সরকারের উচ্চ পর্যায়ে উত্থাপন করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসিদের কল্যাণে ও তাঁদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করছেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম বলেন, “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে যুক্তরাজ্যে সোনালী ব্যাংক চালু করে যুক্তরাজ্য থেকে বৈধ পথে বাংলাদেশে রেমিটেন্স পাঠানোর সূচনা হয়। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও নীতি অনুসরণ করে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেমিট্যান্স প্রেরণের জন্য ২.৫% প্রণোদনা ও সিআইপি মর্যাদাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রবাসীদের বিশেষ সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। হাইকমিশনার বাংলাদেশ হাই কমিশন, লন্ডন রেমিটেন্স এওয়ার্ড প্রবর্তনের পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে রেমিটেন্স প্রেরণকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা তাদের জন্য বিশেষ প্রণোদনাসহ উৎসাহব্যঞ্জক পদক্ষেপ গ্রহণের

বিভিন্ন প্রস্তাব উত্থাপন করলে প্রতিমন্ত্রী এসব বিবেচনার আশ্বাস প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সুলতান মাহমুদ শরীফ ও বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক।বাংলাদেশে রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়াতে পূর্ব লন্ডনে বাঙালি অধ্যুষিত এলাকায় স্থানীয় সময় শুক্রবার বাংলাদেশ হাই কমিশন লন্ডনের এই বিশেষ মেলায় রেমিটেন্স প্রেরণকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাও বক্তব্য রাখেন। মেলায় যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স প্রেরণকারী প্রধান ১৪টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়ে বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রেরনের সুযোগ-সুবিধা ও প্রণোদনা সম্পর্কে মেলায় আগত দর্শকদের অবহিত  করে। এর আগে প্রতিমন্ত্রী ব্রিটিশ-বাংলাদেশি সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রাবসিদের স্বার্থ ও কল্যাণ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর