রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১১:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
দেশের এক কোটি মানুষ মাদকাসক্ত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমার বাসায় কাজ করেছে, সেও এখন ৪০০ কোটি টাকার মালিক: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় পার্টির মধ্যে দ্বিধা-বিভক্তি হতে দেব না: রওশন এরশাদ তিন হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে ইইউভুক্ত চার দেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইজিবাইকের ধাক্কায় ডিউটিরত পুলিশ কনস্টেবল নিহত বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণে আগ্রহী প্রধানমন্ত্রী কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর অসুস্থ মানুসিকতার মানুষের সমালোচনায় কিছু যায় আসে না: প্রধানমন্ত্রী উৎসব ছাড়া বড় তারকাদের সিনেমা কানাডাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোপায় তৃতীয় উরুগুয়ে

পাকিস্তান বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে পায় কিন্তু বিএনপি দেখে না-কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫৮ Time View
Update : রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৪
শেখ জামালের জন্মদিনে বনানী কবরস্থানে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা নিবেদন (ছবি: সংগৃহীত)

পাকিস্তান বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে পায় কিন্তু বিএনপি দেখে না, বিএনপি নেতারা কালো চশমা পরা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশকে নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে বিএনপির লজ্জা পাওয়া উচিত। শেহবাজ শরীফ যা দেখে, তারা (বিএনপি) সেটাও দেখে না।’

রবিবার (২৮ এপ্রিল) শেখ জামালের ৭১তম জন্মদিন উপলক্ষে বনানী কবরস্থানে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের উন্নতি দেখে এখন লজ্জিত হই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফের মন্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে কাদের বলেন, আমার মনে হয় এরা (বিএনপি) পড়াশোনা করে না। কথাটা বলেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ। পাকিস্তানের সঙ্গে পিরিতি তাদের (বিএনপি), বন্ধুত্ব তাদের। পাকিস্তান আজ বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে পায়।

তিনি আরও বলেন, পাকিস্তান একসময় আমাদের বোঝা ভাবতো, এখন লজ্জিত। এতে রিজভীদেরই লজ্জা পাওয়া উচিত। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে তাদেরই লজ্জা পাওয়া উচিত। তারা বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে পায় না। কালো চশমা পরে আছে। শেহবাজ শরীফ যা দেখে, তারা (বিএনপি) সেটাও দেখে না। তারা কেন দেখে না, সেটা তাদের জিজ্ঞাসা করুন।

জাতীয় পার্টিকে হুমকি দিয়ে নির্বাচনে নিয়ে আনা হয়েছে, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কে কাকে হুমকি দিয়েছে? তাদের জন্ম তো বন্দুকের নলে। তারা গণতন্ত্রের মধ্য দিয়ে আসেনি। গত নির্বাচনে বাংলাদেশের ৪২ শতাংশ মানুষ ভোট দিয়েছে। ভোটের দিন কোনও খুন-খারাবি হয়নি। এখানে আমরা কোনও চাপ অনুভব করিনি। তিনি কোন কারণে, কার চাপে নির্বাচনে এসেছেন, সেটা তাকেই (জিএম কাদের) পরিষ্কার করতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করতেই ’৭৫-এর ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, খুনিদের মদত দিয়েছে জিয়া-মোশতাক চক্র। এর মধ্য দিয়ে দেশে হত্যা, ক্যু ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি শুরু। শেখ হাসিনা দেশে ফিরে হত্যা, ক্যু ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি বন্ধ করে উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারা সূচিত করেন।

বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতায় স্থিতিশীল পরিস্থিতিতে দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত আছে বলে জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর