শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৩:২০ পূর্বাহ্ন

সাদিক খান টানা তৃতীয় মেয়াদে লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হলেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ৩১ Time View
Update : রবিবার, ৫ মে, ২০২৪
সাদিক খান। ছবি: এএফপি

টানা তৃতীয় মেয়াদে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন লেবার পার্টির সাদিক খান। এবারের নির্বাচনে ৪৩ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন তিনি। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির সুসান হল পেয়েছেন ৩২ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট। ফলাফল ঘোষণার পর বিজয়ী ভাষণে তিনি যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাককে জাতীয় নির্বাচনের ডাক দেওয়ার আহ্বানও জানান।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় লন্ডনের মেয়র পদে নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়। ভোট গণনা শুরু হয় শুক্রবার থেকে। আর স্থানীয় সময় শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ফল প্রকাশ করা হয়।

ফলাফলে দেখা যায়, ১০ লাখ ৮৮ হাজার ২২৫ ভোট পেয়েছেন সাদিক খান। তার প্রতিদ্বন্দ্বী সুসান হল পেয়েছেন ৮ লাখ ১১ হাজার ৫১৮। অর্থাৎ সুসান হলকে ২ লাখ ৭৬ হাজারের ভোটে পরাজিত করেছেন সাদিক। আর টোরিদের দুটি এলাকাসহ ১৪টি নির্বাচনী এলাকার মধ্যে নয়টিতে জিতেছেন লেবার পার্টির এই রাজনীতিক।

বিজয়ী ভাষণে সাদিক খান বলেন, আমি লন্ডনকে ভালোবাসি। এটি আমার শহর ও এখানকার জনগণকে সেবা করতে পারা আমার জন্য গর্বের। এবারের নির্বাচনেও আমাকে জেতানোর জন্য সবাইকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

‘গত কয়েক মাস আমাদের কঠিন সময় গেছে। আমরা বারবার নেতিবাচক প্রচারণার মুখোমুখি হয়েছি। মিথ্যা ভয় দেখিয়ে আসা হয়েছে আমাদের। কিন্তু আমি এখন গর্বিত যে, সত্যের সঙ্গে সঙ্গে আমরা সেই ভয় দেখানোর উত্তর দিতে পেরেছি।’

সাদিক আরও বলেন, তৃতীয় মেয়াদে পুনঃনির্বাচিত হতে পারা সত্যিই গর্বের বিষয়। তবে আজকের দিনটি ইতিহাস রচনার জন্য নয়, বরং আমাদের ভবিষ্যত গঠনের বিষয়ে আরও কার্যকর চিন্তা-ভাবনা শুরু করা ও সামনের দিনগুলোকে আরও উজ্জ্বল করে এগিয়ে যাওয়ার দিন।

বিবিসি বলছে, নির্বাচনী প্রচারণায় নিরাপদ ও সবুজ রাজধানী গড়ার প্রতিশ্রুতি সাদিক খানকে এবারের নির্বাচনে জিততে সাহায্য করেছে। তাছাড়া তিনি এই দশকের শেষ নাগাদ ৪০ হাজার কাউন্সিল হাউজ নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কাউন্সিল হাউজ হলো নিম্ন আয়ের লোকদের জন্য কম ভাড়ায় স্থানীয় সরকারের দেওয়া বাড়ি বা ফ্ল্যাট।

জাতীয় নির্বাচনের আগে যুক্তরাজ্যের মেয়র নির্বাচনের দিকে নজর ছিল সবার। অধিকাংশের ধারণা, কনজারভেটিভদের চেয়ে জনসমর্থনে এখন অনেক এগিয়ে লেবার পার্টি। ২০২৫ সালের জানুয়ারিতে যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেই নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টিকে হারিয়ে লেবার পার্টি জয় পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২০১৬ সালে প্রথম লন্ডনের মেয়র হন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক সাদিক খান। এরপর ২০২০ সালে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচিত হন তিনি। ২০২৪ সালের নির্বাচনেও জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছেন সাদিক। তার এই বিজয়কে লন্ডনের ইতিহাসে রেকর্ড বলা হচ্ছে।

এমআর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর