শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন

ঢাকায় একটু বৃষ্টি হলেই সড়কে পানি জমে যায়

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৫ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪

ভোরে কালো মেঘ ঘনিয়ে এলো ঝুম বৃষ্টি। ৯টায় ঢুকতে হবে অফিসে। প্রস্তুত হয়ে সকাল পৌনে আটটায় বাইরে বেরিয়ে দেখা গেলো গলির সড়কে হাঁটুপানি। রিকশা না পেয়ে প্যান্ট গুটিয়ে কোনোরকম গাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দেখা গেলো মূল সড়কেও পানি। গাড়িতে উঠতেও ডোবাতে হবে পা।

সকালে মাত্র টানা ঘণ্টা দেড়েকের বৃষ্টি হলেই এ অবস্থার সম্মুখীন হতে হয় রাজধানী ঢাকার অধিকাংশ মানুষের। একটি বেসরকারি অফিসের কর্মকর্তা জামিল জাহিদ বলেন, ঢাকায় একটু বৃষ্টি হলেই সড়কে পানি জমে যায়। ঢাকায় আছি ২০ বছর। কোনো পরিবর্তন নেই। প্রতি বছর শুধু আশ্বাস শুনি। কাজ হয় না। অফিসে যেতে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

‘আজ ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে যে বৃষ্টি হচ্ছে তাতেও সড়কে পানি জমে গেছে। বাহন পাওয়া যায় না। পোশাক-আশাক ভিজে যায়। তিনগুণ রিকশা ভাড়া দিয়ে অফিসে যাচ্ছি।

সোমবার (২৭ মে) ঘূর্ণিঝড় রিমালের বৃষ্টিতেও শহরের বিভিন্ন সড়কে পানি জমে যেতে দেখা যায়। বেলা গড়াতে বৃষ্টি বাড়ার পাশাপাশি সড়কে বাড়ে পানি। ভোগান্তিতে পড়েন সব শ্রেণির মানুষ। এদিনও মিরপুর, শান্তিনগর, বাড্ডা, নিউমার্কেটসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানি জমে ভোগান্তির সৃষ্টি হতে দেখা গেছে।

দুর্যোগ, সাধারণ বৃষ্টি কিংবা বর্ষা মৌসুমের বৃষ্টি- যেটাই হোক না কেন জলাবদ্ধতা ঢাকার মানুষের এসময় সঙ্গী হয়। মূল কথা টানা বৃষ্টি মানেই ঢাকার সড়কে জলাবদ্ধতা। বর্ষা মৌসুমে পানির প্রবাহ বেশি থাকায় জমা পানি অনেক সময় নামতে দেরি হয়। বাড়ে ডেঙ্গুর মতো রোগের উপক্রম।

নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উদ্যোগ রয়েছে। তবে কোনো উদ্যোগই কাজে আসছে না। প্রতি বছর জলাবদ্ধতা নিরসনের নামে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করছে সংস্থা দুটি। কিন্তু তার তেমন কোনো সুফল মিলছে না। বৃষ্টি হলেই নগরের প্রধান সড়ক থেকে অলি-গলি পর্যন্ত তলিয়ে যাচ্ছে পানিতে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হলে জলাবদ্ধতায় আরও নাকাল হবে নগরবাসী। তবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সংশ্লিষ্টরা জানান, নগরে জলাবদ্ধতা নিরসনে তারা আরও মাসখানেক আগ থেকেই কাজ শুরু করেছেন। এখন সম্ভাব্য জলাবদ্ধতাপ্রবণ এলাকাগুলোর ড্রেন, নালা, খাল পরিষ্কারে কাজ চলছে। আর যেসব এলাকায় জলাবদ্ধতা বেশি হয়, তা সমাধানে আলাদা প্রকল্প নিচ্ছে সংস্থা দুটি।

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর