বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন

বেনজীরকে পালাতে সাহায্য করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫২ Time View
Update : রবিবার, ২ জুন, ২০২৪

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘একটা-দুইটা নয়, হাজার হাজার বেনজীর ও আজিজ তৈরি করেছে সরকার। আমরা যখন চিকিৎসার জন্য বাইরে যেতে চাই তখন ভিসা নিয়ে এয়ারপোর্টে গেলে দেড় থেকে দুই ঘণ্টা বসিয়ে রাখে। আর তাকে (বেনজীর) জামাই আদর করে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসে তুলে দিয়েছে, যেন দেশ থেকে বেরিয়ে যেতে পারে। সেই ব্যবস্থাটা করেছে এই সরকার।

গতকাল শনিবার বিকালে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা-সংলগ্ন একটি কমিউনিটি সেন্টারে মহানগর বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘এই সরকার হচ্ছে চোরের রাজা বাটপার। যারা চুরি করে তাদের সব সময় প্রশ্রয় দেয়। কারণ, তারা বাটপারি করে। আরেকজন সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান জেনারেল (অব.) আজিজ, যার একটা ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল আল–জাজিরাতে। সেখানে দেখেছি কীভাবে তিনি তাদের ভাইদের রক্ষা করার জন্য প্রভাব খাটিয়ে তাদের মুক্ত করেন। পরে পাসপোর্ট ও ভিসা দিয়ে বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে আমেরিকা নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর এখন টনক নড়েছে। তারা বলছে, এখন নাকি তারা তদন্ত করবে। শুধু একটা বেনজীর বা একটা আজিজ নয়, হাজার হাজার বেনজীর ও আজিজ তৈরি করেছে সরকার।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজ যে দেশে আমরা বাস করি, তাকে বলি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। সেই স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশটা স্বাধীন করবার জন্য যাদের দায়িত্ব ছিল, তখন তারা দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ হয়েছেন। যখন পাক হানাদার বাহিনী আক্রমণ করেছিল, তাদের বেশির ভাগ নেতা পালিয়ে চলে গেছে এবং মূল নেতা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। এই কথাগুলো বললে তারা খুব ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। তাদের ভালো লাগে না। কিন্তু এটাই হলো চিরন্তন সত্য। শহীদ জিয়া ৯ মাস যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছেন। তিনি শুধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণাই করেননি, এরপর যখনই বাংলাদেশের সামনে আরও বড় সংকট উপস্থিত হয়েছিল ৭ নভেম্বর ১৯৭৫ সালে, তখন মানুষের সামনে ত্রাণকর্তা হিসেবে উপস্থিত হয়েছেন।

গাজীপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি মো. শওকত হোসেন সরকারের সভাপতিত্বে ও সদর মেট্রো থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনিরের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ছাইয়েদুল আলম বাবুল, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার, ডা. মাজহারুল ইসলাম ও ড. অ্যাডভোকেট শহিদুজ্জামান প্রমুখ।

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর