বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০২:২২ পূর্বাহ্ন

যেখানে মেসি সবার ওপরে

স্পোর্টস ডেস্ক / ৬৬ Time View
Update : সোমবার, ৩ জুন, ২০২৪

বলা হয়ে থাকে, ‘রেকর্ড গড়াই হয় ভাঙার জন্য’। আর এই রেকর্ড গড়া কিংবা, এতে অনন্য লিওনেল মেসি। ক্লাব আর আন্তর্জাতিক ফুটবলের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এ আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি নামের পাশে যোগ করেছেন অসংখ্য রেকর্ড।

আসছে কোপা আমেরিকায় রেকর্ড নিজের দখলে নেবেন মেসি। যদিও মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা তার দখলে। তবে সেটা যৌথভাবে। একই সঙ্গে একমাত্র ফুটবলার হিসেবে গড়বেন আরও একটি রেকর্ড।

ক্লাদিও ব্রাভো (চিলি) : লম্বা সময় ধরে চিলির গোলপোস্ট সামলাচ্ছেন তিনি। তার অধিনায়কত্বে দুবার শিরোপা জিতেছে চিলি। ২০১৬ সালে টাইব্রেকে আর্জেন্টিনার হৃদয় ভাঙার মূল কারিগর তিনি। বার্সা ও ম্যানসিটির সাবেক এই গোলকিপার কোপার ৬ আসরে খেলেছেন ২৫টি ম্যাচ।

হাভিয়ের মাশ্চেরানো (আর্জেন্টিনা) : আলবিসেলেস্তাদের মিডফিল্ডের অন্যতম নেতা ছিলেন তিনি। খেলেছেন কোপার চারটি ফাইনাল। তবে শিরোপা না জিততে পারার আক্ষেপ নিয়ে অবসরে যেতে হয় তাকে। সবমিলিয়ে কোপা আমেরিকার ২৬টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। যা আর্জেন্টাইনদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

লিওনেল আলভারেজ (কলম্বিয়া) : ১৯৮০ থেকে ১৯৯০, এই ১০ বছরে দারুণ সময় কাটায় কলম্বিয়া। কোপা আমেরিকার শিরোপা ঘরে তুলতে না পারলেও তৃতীয়বার তৃতীয় হয়েছে তারা। আর এই অর্জনে বড় অবদান ছিল লিওনেল আলভারেজের। সর্বমোট ৫ আসরে ২৭ ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

গ্যারি মেডেল (চিলি) : কোপা আমেরিকায় চিলির টানা দুই শিরোপা জয়ে বড় অবদান তার। রক্ষণটা বেশ ভালো ভাবে সামাল দিয়েছেন গ্যারি মেডেল। সব মিলিয়ে তিনি খেলেছেন সর্বমোট ৫টি কোপা।

কার্লোস ভালদেরামা (কলম্বিয়া) : তাকে ধরা হয় লাতিন আমেরিকা ও কলম্বিয়া ফুটবল কিংবদন্তি। চুলের বাহারি ধরনের জন্য বেশি পরিচিত ছিলেন তিনি। কোপায় কলম্বিয়ার জার্সিতে রেকর্ড ২৭ ম্যাচ খেলেছেন। যা দেশটির ফুটবল ইতিহাসের সর্বোচ্চ এবং সব মিলিয়ে ষষ্ঠ।

ইয়োশিমার ইয়োতুন (পেরু) : সাম্প্রতিক সময়ে পাওয়া সাফল্যের অন্যতম কারিগন তিনি। পাঁচ কোপায় তিনি খেলেছেন ২৭টি ম্যাচে।

ভিক্টর অগাস্টিন উগার্তে (বলিভিয়া) : দেশটির ফুটবল ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ড তার দখলে। একই সঙ্গে কোপার সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডের মালিকও তিনি। লাতিন আমেরিকা টুর্নামেন্টটিতে তিনি খেলেছেন ৩০ ম্যাচ।

জিজিনহো (ব্রাজিল) : লিওনেল মেসির সঙ্গে কোপার ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। ম্যাচ খেলাতেও তার নাম রয়েছে ওপরের দিকে। সর্বমোট ৩৩টি ম্যাচ খেলেছেন ব্রাজিলিয়ান এ মিডফিল্ডার। যা ব্রাজিলিয়ানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ড।

সার্জিও লিভিংস্টোন (চিলি) : কয়েক দশক ধরে কোপা আমেরিকার সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডের মালিক চিলির কিংবদন্তি গোলকিপার সার্জিও লিভিংস্টোন। সব মিলিয়ে ৬ আসরে তিনি খেলেছেন ৩৪ ম্যাচ। ২০২১ সালে মারাকানায় ব্রাজিলের বিপক্ষে কোপার ফাইনাল দিয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডে ভাগ বসান মেসি।

লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা) : এখন পর্যন্ত কোপা আমেরিকায় ৬টি আসর খেলেছেন মেসি। যুক্তরাষ্ট্রে হতে যাওয়া কোপার ৪৮তম আসরে বিশ্বজয়ীদের আর্মব্যান্ড থাকবে তার হাতে। ২১ জুন কানাডার বিপক্ষে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে নতুন দুটি মাইলফলস স্পর্শ করবেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি। প্রথম ফুটবলার হিসেবে সবচেয়ে বেশি ৭ আসরে খেলার রেকর্ড গড়বেন তিনি। একই সঙ্গে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডের মালিক হবেন তিনি।

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর