রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন

দুদিন আগের কথা ভুলে যান: পাকিস্তান কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক / ১৯ Time View
Update : রবিবার, ৯ জুন, ২০২৪

বিশ্বকাপের শুরুতেই পাকিস্তান খেয়েছে বড় ধাক্কা। স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে হেরে গেছে তারা। এখন সুপার এইটে উঠার পথ অনেক কঠিন হয়ে গেছে তাদের জন্য। এর মধ্যেই এখন পাকিস্তানকে মাঠে নামতে হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে।

রোববার নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ। বিশ্বকাপে এমনিতেই সবচেয়ে বড় ম্যাচ এটি। এখন ম্যাচটি বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে বাবর আজমদের টিকে থাকার লড়াই বলে। তবে এ ম্যাচের আগে দলকে কোনো বাড়তি অনুপ্রেরণা দেওয়ার দরকার নেই বলে মনে করেন পাকিস্তানের সাদা বলের কোচ গ্যারি কারস্টেন।

ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এটা একটি বড় ম্যাচ, ভারতের বিপক্ষে নামার আগে পাকিস্তান দলকে বাড়তি অনুপ্রাণিত দেওয়ার দরকার নেই। আমাদের শেষ কয়েকদিনের কথা ভুলে যেতে হবে। আমাদের শুধু এগিয়ে যেতে হবে, এটিই এখন একমাত্র পথ। (যা হয়েছে) দুদিন আগের কথা ভুলে যান। আমরা এখন ওটা ফিরিয়ে আনতে পারব না। যা চলে গেছে তা গেছে, তাই আমরা এগিয়ে যেতে চাই।

পাকিস্তান দলের জন্য বরাবরই বড় শক্তি বোলিং। বিশেষত দলটির পেস বোলারদের প্রায় সবাই বিশ্বমানের। মোহাম্মদ আমির, শাহিন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফদের বোলিং ইউনিটও অবশ্য জেতাতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে। তবুও বোলিংয়েই বড় ভরসা পাকিস্তানের।

এ নিয়ে গ্যারি কারস্টেন বলেন, এটা অবশ্যই আমাদের শক্তির জায়গা। আমরা আমাদের দলের ভারসাম্য রেখে খেলতে চাই। মাঠে নামার আগে আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে আমাদের কাছে স্পিন, ভালো পেস বিকল্প এবং লম্বা ব্যাটিং লাইন আছে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ ও বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নাসাউ স্টেডিয়ামেই খেলেছে ভারত। এই মাঠের পিচ নিয়ে নানা ধরনের সমালোচনা রয়েছে। পাকিস্তানের কোচকে উত্তর দিতে হয়েছে দুই ম্যাচ খেলায় ভারত কোনো বাড়তি সুবিধা পাচ্ছে কি না এ নিয়ে।

উত্তরে তিনি বলেন, এই বিষয়ে আমি নিশ্চিত না। কারণ আমি ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারি না যে কী ঘটবে। আমি জানি না ওদের এতে (দুই ম্যাচ খেলায়) কোনো সুবিধা হবে কি না।

একজন খেলোয়াড়ের পক্ষে ম্যাচ জেতানো কঠিন। তারা (পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা) তাদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছে। আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আমরা দল হিসেবে যেন খেলতে পারি। হ্যাঁ, আমাদের ভালো পারফরম্যান্স করার জন্য ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স প্রয়োজন। কিন্তু এই ধরনের খেলায় দলগত প্রচেষ্টার প্রয়োজন হয়। এটা একটা বড় ম্যাচ।

 

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর