বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন

সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে হুঁশিয়ারি দিল পিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক / ২৮ Time View
Update : শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে সমালোচনা হচ্ছে। এই সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাক দল বিদায় নেওয়ার পর থেকেই সমালোচনা শুরু হয়েছে। সেসব সমালোচনা অনেক সময় মাত্রাছাড়া হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি এক সমর্থকের সঙ্গে হাতাহাতি করেছেন বোলার হ্যারিস রউফ। এসব দেখেই নড়েচড়ে বসেছে পিসিবি। তারা সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে আইনিব্যবস্থা নেওয়ারও হুমকি দিয়েছে।

আনন্দবাজার প্রতিবেদন সূত্র জানায়, এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে পাকিস্তান। এ নিয়ে দেশ-বিদেশে আলোচনা-সমালোচনার শিকার হচ্ছেন বাবর আজমরা। তাই সমালোচনার মুখ বন্ধে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পিসিবি। কেউ যদি বাবরদের বিরুদ্ধে অসত্য খবর প্রকাশ করে, তবে তার জেলও হতে পারে বলে জানিয়েছে।

সম্প্রতি এক নেটিজেন দাবি করেছিলেন বাবর আজম কারও কাছ থেকে দামি গাড়ি উপহার নিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে। কোনো ব্যক্তি বা সংগঠন কোনো আক্রমণ কিংবা কিছু দাবি করার পর যদি সত্যতা প্রমাণ করতে না পারেন, তা হলে তাকে শাস্তি দেওয়া হবে।

পাকিস্তান দল বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর দলের উদ্দেশে কোচ গ্যারি কার্স্টেন বলেছিলেন পাকিস্তান দল হিসাবে খেলেনি বলেই হেরেছে। ক্রিকেটারদের মধ্যেও কোনো একতা নেই।

তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তান দলে কোনো একতা নেই। তারা মুখে বলে এক দল। কিন্তু তারা সবাই আলাদা। নিজেদের মতে চলে। কেউ কাউকে সাহায্য করে না। এটা কোনো দলই নয়। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এ ক্রিকেটার বলেন, আমি অনেক দলে কাজ করেছি। কিন্তু কোথাও এমন অভিজ্ঞতা হয়নি। জীবনে এমন দল আমি দেখিনি।

গ্যারি কার্স্টেন বলেছেন, পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের ফিটনেস দেখে তিনি অবাক হয়েছেন। ক্রিকেটীয় দক্ষতাতেও অন্য দলগুলোর থেকে বাবররা পিছিয়ে রয়েছেন বলেই মনে করেন তিনি। এসব কারণেই বিশ্বকাপের গ্রুপপর্ব থেকে তাদের বিদায় নিতে হয়েছে। যদিও কার্স্টেন পরে এ কথা অস্বীকার করেন।

এদিকে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সরকার একটি আইন পাশ করেছে। সেখানে কোনো খ্যাতনামা ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে প্রমাণ ছাড়াই ব্যক্তিগত আক্রমণ করলে শাস্তির বিধান রয়েছে। বড় জরিমানা এমনকি ছয় মাসের জেলও হতে পারে। এই আইনকে সঙ্গী করে বাবর আজমদের পাশে দাঁড়াচ্ছে বোর্ড।

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর