বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৭:১৮ অপরাহ্ন

৭৭ বছর পর রাজশাহী ও কলকাতার মধ্যে পুনরায় ট্রেন সার্ভিস চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৫ Time View
Update : সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪

বাংলা যখন অবিভক্ত ছিল, তখন রাজশাহীর সঙ্গে রেল যোগাযোগ ছিল কলকাতার। ১৯৪৭ সালে ভারত ও পাকিস্তান পৃথক রাষ্ট্র গঠনের পর সেই যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

সেই থেকেই চিকিৎসা ও ভ্রমণসহ নানা কারণে রাজশাহী অঞ্চলের বিপুল সংখ্যক মানুষকে সড়কপথে ভারত যেতে হচ্ছে।

গেল শনিবার (২২ জুন) বাংলাদেশ ও ভারতের দুই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে দীর্ঘ ৭৭ বছর পর রাজশাহী ও কলকাতার মধ্যে পুনরায় ট্রেন সার্ভিস চালুর ঘোষণা দেওয়া হয়।

বর্তমানে ঢাকা-কলকাতা রেলপথে মৈত্রী এক্সপ্রেস, ঢাকা-খুলনা রেলপথে বন্ধন এক্সপ্রেস এবং ঢাকা-শিলিগুড়ি রেলপথে মিতালী এক্সপ্রেস চলাচল করছে।

দিল্লিতে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বৈঠক থেকে ১৩টি ঘোষণা আসে। এ ঘোষণার একটি হলো রাজশাহী ও কলকাতা ট্রেন সার্ভিস চালু করা।

জানা যায়, রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন চলাচল চালু করতে দীর্ঘদিন ধরে প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। এটি মেয়র লিটনের ২০১৮ ও ২০২৩ সালের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতেও ছিল।

রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন সার্ভিস চালু করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে লিখিতভাবে ও মৌখিকভাবে বারবার দাবি জানান রাসিক মেয়র।

এ ছাড়া রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন সার্ভিস চালুর গুরুত্ব তুলে ধরে রেলমন্ত্রীকে কয়েকবার ডিও লেটার দিয়েছেন মেয়র লিটন। সবশেষ গত ১০ মে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম রাজশাহী সফরে গেলে রাজশাহী থেকে কলকাতা পর্যন্ত সরাসরি ট্রেন ও ফ্লাইট চালুর দাবি সংবলিত ডিও লেটার দেন।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে জানায়, রাজশাহী থেকে ট্রেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতের সিঙ্গাবাদ, মালদহ, ফারাক্কা, কাটোয়া, খাগড়াঘাট হয়ে কলকাতার হাওড়ায় রেলস্টেশনে পৌঁছাবে। এ পথে কলকাতা যেতে ৪২৫ কিলোমিটার পথ দূরত্ব অতিক্রম করতে হবে। সময় লাগবে প্রায় ১১ ঘণ্টা।

আর গেদে সীমান্ত দিয়ে ২১৫ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করে কলকাতা যেতে সময় লাগবে প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা। তবে এখনো ট্রেনের রুট ঠিক হয়নি। এ নিয়ে দুই দেশের রেল কর্মকর্তাদের আলোচনায় বসতে হবে।

এ নিয়ে রাসিক মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন জানান, রাজশাহী থেকে কলকাতায় সরাসরি ট্রেন ও বিমান চালু করা আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিগুলোর মধ্যে অন্যতম। অবশেষে বহুল কাঙ্ক্ষিত রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন সার্ভিস চালু হতে যাচ্ছে।

সোনালী বার্তা/এমএইচ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর