সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১২:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দেশের এক কোটি মানুষ মাদকাসক্ত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমার বাসায় কাজ করেছে, সেও এখন ৪০০ কোটি টাকার মালিক: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় পার্টির মধ্যে দ্বিধা-বিভক্তি হতে দেব না: রওশন এরশাদ তিন হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে ইইউভুক্ত চার দেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইজিবাইকের ধাক্কায় ডিউটিরত পুলিশ কনস্টেবল নিহত বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণে আগ্রহী প্রধানমন্ত্রী কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর অসুস্থ মানুসিকতার মানুষের সমালোচনায় কিছু যায় আসে না: প্রধানমন্ত্রী উৎসব ছাড়া বড় তারকাদের সিনেমা কানাডাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোপায় তৃতীয় উরুগুয়ে

লেবার পার্টির ‘ঘাঁটি’ গুঁড়িয়ে ফিলিস্তিনপন্থি আদনানের জয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ২০ Time View
Update : শুক্রবার, ৫ জুলাই, ২০২৪

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলের যুদ্ধ নিয়ে লেবার পার্টির অবস্থান নিয়ে দলটির অনেক ভোটারের মধ্যে যে বিভক্তি ও অসন্তোষ রয়েছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী আদনানের জয়ে তারই প্রতিফলন হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে।

সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আই জানিয়েছে, রাজনীতিতে নতুন আসা আদনান ভোট পেয়েছেন ১০ হাজার ৫১৮টি। আর পরাজিত প্রার্থী হলার্ন পেয়েছেন ১০ হাজার ৩৮৬ ভোট। অর্থাৎ, ১৩২ ভোটে হলার্নকে হারিয়ে দেন আদনান। ব্ল্যাকবার্ন আসনটিতে ৬৯ বছর ধরে প্রতিনিধিত্ব করছেন লেবার পার্টির আইনপ্রণেতারা।

যুক্তরাজ্যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে কোনো দলের ৩২৬ আসনের প্রয়োজন। লেবার পার্টি এরই মধ্যে ৪১১ আসনে জয় নিশ্চিত করায় পতন হয়েছে ১৪ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা কনজারভেটিভ পার্টির। কেয়ার স্টারমার হচ্ছেন যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী। এরই মধ্যে পরাজয় স্বীকার করে স্টারমারকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ঋষি সুনাক।

৩৪ বছর বয়সী আদনান পেশায় আইনজীবী। নির্বাচনে গাজাপন্থি প্ল্যাটফর্ম থেকে দাঁড়ান তিনি। তাকে সমর্থন দেয় সাবেক লেবার কাউন্সিলরদের একটি দল। লেবার দলের গাজা নীতিকে ঘিরে দলটি থেকে সরে যান এই কাউন্সিলররা।

গত জুনের মাঝামাঝি মিডল ইস্ট আইকে আদনান বলেছিলেন, সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে তিনি আত্মবিশ্বাসী।

এদিকে ব্ল্যাকবার্নে লেবার প্রার্থী হারলেও, নির্বাচনের আগে পরিচালিত জনমত জরিপ এবং বুথফেরত জরিপই শেষ পর্যন্ত সত্যি হয়েছে। যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে কেয়ার স্টারমারের নেতৃত্বে ভূমিধস জয় পেয়েছে লেবার পার্টি।

বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টার দিকে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত লেবার পার্টি ৪১১টি আসনে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে ঋষি সুনাকের কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১১৯ আসন। লিবারেলে ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জয় পেয়েছে ৭১টি আসনে। এখনো ৫টি আসনের ফল প্রকাশ বাকি।

আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণার পর লেবার পার্টিকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানাবেন ব্রিটিশ রাজা তৃতীয় চার্লস। সেক্ষেত্রে শুক্রবারই রাজার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

আগামী ৯ জুলাই নতুন পার্লামেন্ট সদস্যদের শপথ গ্রহণ ও স্পিকার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ১৭ জুলাই রাজা তৃতীয় চার্লসের উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধ্যমে নতুন সরকারের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে।

সোনালী বার্তা/এমএইচ

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর