বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:১২ পূর্বাহ্ন
/ অর্থনীতি
রমজান সামনে রেখে মার্চের প্রথম সপ্তাহেই দেশের বাজারে আসছে ভারতীয় পেঁয়াজ। দ্বিপাক্ষিক চুক্তির আওতায় বাংলাদেশে এই পেঁয়াজ রপ্তানি করবে ভারত। চুক্তির আওতায় ভারত থেকে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ আসবে দেশে। বিস্তারিত
ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশের ভিত্তিতে বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে ভারত। ভারতের রপ্তানিকারকরা আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই পেঁয়াজ বাংলাদেশে পাঠাতে পারবে। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভারতের ভোক্তা
আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে লিটার প্রতি ১০ টাকা কমিয়ে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৬৩ টাকা এবং খোলা সয়াবিন তেলের দাম ১৪৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন দাম ১ মার্চ থেকে
ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্য কমে যাওয়ায় ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল বা কার্যকরি মূলধনের চাহিদা ২০-৪০ শতাংশ বেড়ে গেছে। এ পরস্থিতিতে বাংলাদেশ ব্যাংক মাত্র ১০ শতাংশ ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ঠিক করেছে। ফলে কঠিন
বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিশেষ করে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশের সরকারি ব্যয় অনেক কম। ২০২১ সালে যেখানে বাংলাদেশে সরকারি ব্যয় ছিল জিডিপির ১৩ শতাংশ, সেখানে ভারতের ছিল
দেশের বাজারে ফের বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। মাত্র দু’দিনের ব্যবধানে কেজিতে দাম বেড়েছে প্রায় ২৫ থেকে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা পর্যন্ত। রাজধানীর বাজারে এখন প্রতি কেজি পোঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা দরে।
শুল্ক কমায় আগামী সপ্তাহের মধ্যে ভোজ্যতেল ও চিনির নতুন দাম নির্ধারণ হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।
আসন্ন রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম স্বাভাবিক রাখতে চাল, চিনি, তেল ও খেজুরে ভ্যাট ও শুল্ক কমিয়েছে সরকার। এর মধ্যে খেজুরে আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ, চালে রেগুলেটরি ডিউটি ২০ শতাংশ, তেলে